সারাদেশের মাদ্রাসাসমূহ (বিভাগ ভিত্তিক)

জামিয়া মাদানিয়া ক্বাওমিয়া শেখ এম এ জাব্বার কমপ্লেক্স (শেখবাড়ী জামিয়া)

নভেম্বর ১৭ ২০১৮, ০৪:২৭

প্রতিষ্ঠানের নাম :- জামিয়া মাদানিয়া ক্বাওমিয়া শেখ এম এ জাব্বার কমপ্লেক্স(শেখবাড়ী জামিয়া)

প্রতিষ্ঠা কাল :- প্রেক্ষাপট ও প্রতিষ্ঠা:দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠবুজুুুর্গ ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব ছিলেন মাদানী রহ় এর অন্যতম খলিফা হযরত মাওলানা লুৎফুর রহমান বর্ণভী রহ়৷তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনের আলোকিত কার্যবলী ছিল মানব-সেবা ও জনকল্যাণ কেন্দ্রীক৷অবহেলিত, পথভুলা জনগোষ্ঠীকে সঠিক পথের দিশা দেয়ার জন্য তাঁর হৃদয় সর্বদা ব্যাকুল থাকত৷শিক্ষা-দীক্ষায় পিছিয়ে থাকা অবহেলিত জনপদ গুলোতে তিনি ইসলাহী সফর করতেন সপ্তা-মাস ব্যাপী৷অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থাকে উপেক্ষা করে শায়েশ বর্ণভী রহ় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মাহফিল গুলোতে তাশরীফ নিতেন৷তাঁর আবেগভরা জিকির ও হৃদয়কাডা মোনাজাতেে মানব হৃদয় বিগলিত হতো৷আল্লাহভুলা সরবসাধারণ মানুষ তাঁর হেদায়াতী বয়ান জিকির ও মোনাজাতে পেয়েছিল দ্বীনের সহীহ বুঝ ও সঠিক পথ৷দীর্ঘ ইসলাহী সফর শেষে তিনি যখন বাডী ফিরতেন তখন ভৈরবগঞ্জ বাজার এলাকা হয়েই তাঁকে বরুণা পৌঁছতে হতো৷তখন আলাপ-চারিতায় অনেকের সাথে একথা বলতেন, ভৈরবগঞ্জ বাজার সংলগ্ন রাস্তার আশ-পাশেে যদি কোনো মাদরাসা হতো তবে এলাকার খুবই উপকার হতো ৷এজন্য তিনি প্রায়ই দরবারে ইলাহীতে মোনাজাত করতেন৷উম্মতের এই দরদী রাহবার তাঁর সুদীর্ঘ জীবনের প্রতিটি মূহূরতে মানুষের হেদায়াতের পথ প্রদরশনে ব্যয় করেছেন৷অবশেষে ১৯৭৭ ঈসায়ী সনে সর্বোত্তম বন্ধুর সান্নিধ্য আশ্রিত হন৷প্রতিষ্ঠা:ওলি আউলিয়া কেরামের দোয়া বৃথা যায় না৷উপযুক্ত সময়ে বাস্তবে প্রতিফলিত হয়৷বর্ণভী রহ় ইন্তেকালের প্রায় ২৭ বছর পর আল্লাহ তায়ালা শেখ এম়এ়জাব্বার সাহেবের অন্তরে একটি দ্বীনি প্রতিষ্ঠান গডে তোলার বাসনা জাগ্রত করে দেন৷মাদরাসা প্রতিষ্ঠার আগ্রহ তাঁর অন্তরে প্রবল হতে থাকলে এলাকার কিছু বিদ্যানুরাগী আলেম উলামা ও সূধীজনের কাছে তা ব্যক্ত করেন৷একপর্যায়ে এ মহৎ উদ্যোগের প্রস্তাব পেশ করেন বর্ণভী রহ় এর সুযোগ্য উত্তরসূরীদের কাছে৷বর্ণভী পরিবার তাঁর এ প্রস্তাবকে স্বাগত জানান৷পরিকল্পিত প্রতিষ্ঠানকে বাস্তবে রূপায়ণের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিক নিদর্শনা দিয়ে শুরু করেন তার প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম৷সাংবিধানিক ও দালিলিক কার্যক্রম সম্পন্ন করে হযরত মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভীকে প্রধান পরিচালক নিয়োগ করে এই পরিকল্পিত প্রতিষ্ঠানটি জামিয়া মাদানিয়া ক্বাওমিয়া শেখ এম়এ়জাব্বার কমপ্লেক্স নামে ১৫ জানুয়ারী ২০০৩ ঈসায়ী সনে যাত্রা শুরু করে৷দানবীর শেখ এম়এ় জাব্বার ১২৯ শতক মূল্যবান জায়গা প্রতিষ্ঠানের নামে ওয়াকফ করেন৷

প্রতিষ্ঠাতা :- হযরত মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভী হাফিজাহুল্লাহু৷

প্রতিষ্ঠাকালিন মুহতামিম :- হযরত মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভী হাফিজাহুল্লাহু

প্রতিষ্ঠাকালিন শিক্ষাসচিব :- হযরত মাওলানা আব্দুস সালাম রহ়

প্রতিষ্ঠাকালিন শিক্ষকবৃন্দ :- মাওলানা আব্দুস সালাম,মুফতী সালমান আহমাহ

প্রতিষ্ঠাকালিন জামাত সংখ্যা,বর্তমান সমাপনী জামাত / মাদরাসা দাওরায়ে হাদিস পর্যন্ত হলে্ এর উদ্বোধনীর সন :- ২০০৩ ঈসায়ী সনের জানুয়ারী মাসের ১৫ তারিখ শুধু হিফজুল কুরআন শাখা চালুর মধ্য দিয়ে জামিয়ার প্রতিষ্ঠাকালিন একাডেমিক কার্যক্রমের শুভ সূচনা হয়৷মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভী এর সুদক্ষ পরিচালনায় জামিয়া সম্মুখপানে এগিয়ে যায়৷খোলা হয় নূরানী ও প্রাইমারী বিভাগ৷অতি দ্রুত এগিয়ে যেতে থাকে জামিয়া৷পর্যায়ক্রমে খোলা হয় নিম্ন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক৷2014/2015 শিক্ষাবর্ষে জামিয়া উন্নতী হয় ফযীলত পর্যায়ে(মিশকাত)৷

মাদরাসার বর্তমান অবস্থা বর্ণনা করে আগামীর পরিকল্পনা :- বর্তমান ফযিলত পর্যন্ত পাঠদান চালু ৷ভবিষ্যত পরিকল্পনা:০১়তাখাসসুস ফিল ফিকহ ওয়াল ইফতা বিভাগ চালু করা,০২়তাখাসসুস ফিল আদব কোর্স চালু করা,০৩়ইলমুল কিরাতের বিশেষ কোর্স চালু করা,০৪়দেশী-বিদেশী মূল্যবান কিতাবাদি দ্বারা গ্রন্থাগারকে আরো সমৃদ্ধ করা, ০৫়কম্পিউটার কোর্স চালু করা,০৬ইয়াহইয়াউস সুন্নাহর বিশেষ প্রশিক্ষণ কোর্স চালু করা,০৭়জনকল্যাণ ও সমাজসেবামূলক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করা,০৮়বয়স্ক শিক্ষা কোর্স চালু করা,০৯়কারিগরি বিদ্যা বিভাগ চালু করা,১০়রচনা,গবেষণা,ওপ্রকাশনা বিভাগ১১়স্বতন্ত্র আরো একটি নির্মাণ করা

46452221_1880966271968576_6418634379681071104_n

মাদরাসাটি যে বোর্ডের অধিনে :- বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ,আযাদ দ্বীনী এদারায়ে তালিম বৃহত্তর সিলেট(শুধু হেদায়েতুন্নাহু জামাত),তানযিমুল মাদারিসিল আরাবিয়্যাহ মৌলভীবাজার(শুধু মিযান জামাত)৷পাশের হার:2013 সাল:98়5%,2014 সাল:100%,2015 সাল:98%,2016সাল:96%,2017 সাল:98়98% (বেফাক)৷2013 থেকে 2017 পর্যন্ত 100% (এদারা ও তানযিম বোর্ড)৷

মাদরাসার হিসাব ব্যাবস্থা / ফান্ড:- জামিয়ার নির্ধারিত ও স্থায়ী আয়ের কোনো উৎস নেই৷দ্বীন-দরদী দেশী-প্রবাসীী ভাই-বোনদের মুক্তহস্তে দান-খায়রাতে জামিয়া পরিচালিত হয়ে আসছে৷হিসাব নিকাশের সুবিধার্তে জামিয়ার যাবতীয় আয়-ব্যয় চারটি ফান্ডে সংরক্ষণ করা হয়৷১়জেনারেল ফান্ড ২় গরীব ফান্ড ৩়কিতাব ফান্ড ৪়বিল্ডিং ফান্ড

বর্তমান মুহতামিম :- হযরত মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভী হাফিজাহুল্লাহু

বর্তমান মুহতামিমের মোবাইল নাম্বার :- মুহতামিম:০১৭১১-৪৪ ৭৮ ০৭,নায়েবে মুহতামিম:০১৭১৯-১৯ ০২ ১৬ মুঈনে মুহতামিম:০১৭৫২-০৯১১ ৪২

বর্তমান শিক্ষাসচিব :- হাফেজ মাওলানা মুফতী সালমান আহমাদ, মোবাইল:০১৭২৯-৫১৩৬৪২

বর্তমান শিক্ষকবৃন্দের তালিকা :- হযরত মাওলানা মুফতী রশীদুর রহমান ফারুক্ব বর্ণভী দা়বা(মুহতামিম)৷

হাফিজ মাওলানা শেখ আহমদ আফজাল বর্ণভী(নায়েবে মুহতামিম),

হাফিজ মাওলানা সাদ আহমদ আমিন বর্ণভী(মুঈনে মুহতামিম),

হাফিজ মাওলানা মুফতী সালমান আহমাদ(নাযেমে তালিমাত),

মাওলানা মুফতী ফরীদুদ্দীন(নাযেমে কুতুব খানা),

মাওলানা মুফতী আতহার আলী কাউসার,

মুফতী কাউসার আহমাদ,

মাওলানা মুফতী সারওয়ার,

মুফতী জাকারিয়া জাকির,

মাওলানা বুরহানুদ্দীন,

মাওলানা নুরুদ্দীন,

মাওলামা শিব্বীর আহমদ,

মাওলানা ফয়জুল্লাহ,

মাওলানা সাজ্জাদুল হক,

মাওলানা জাফর আহমদ,

মওলানা নুরুদ্দীন আবদাল,

মাওলানা আব্দুল মুক্তাদির,

মাওলালানা লোকমান আহমদ,

মাওলানা বদরুল ইসলাম,

মাস্টার দেওয়ান ফারুক(কিতাব বিভাগ)৷

হাফিজ ওলিউর রহমান,

হাফিজ রিদওয়ান,

হাফিজ আতাউল্লাহ,

হাফিজ রফিকুল ইসলাম(হিফজ বিভাগ)৷

মাওলানা রমযান আলী,মৌলভী শামীম(নাযেরা বিভাগ)৷

মাওলানা হেলাল উদ্দীন,

মাওলানা মুশাহিদ,

মাওলানা আবিদুর রহমান,

মাওলানা মিযানুর রহমান,

মাস্টার মুফাজ্জল(নূরানী বিভাগ)৷

চলমান মোট ছাত্র সংখ্যা :- প্রায় ৮১৭

চলমান ছাত্রাবাসে অবস্থান রত ছাত্র সংখ্যা :- প্রায় ৭০০

তথ্য দানকারীর নাম :- মুহাম্মাদ আতহার আলী কাউসার

তথ্য দানকারীর মোবাইল :- ০১৯৫২-৯৬ ৩৪ ৯৩

তথ্য দানকারীর ইমেইল :-

Spread the love