সারাদেশের মাদ্রাসাসমূহ (বিভাগ ভিত্তিক)

শায়খুল হাদিস মাওলানা আবদুল লতিফ শায়খে চাউরী

আগস্ট ৩০ ২০২০, ০৩:৩৪

নাম :- শায়খুল হাদিস আল্লামা আবদুল লতিফ শায়খে চাউরী

জন্ম / জন্মস্থান :- জন্ম ও শৈশব…. আবদুল লতীফ চাউরী রাহ. সিলেট জেলার কানাইঘাট থানার চাউরা গ্রামে এক দীননদার পরিবারে ১৩৫৯ হিজরী মোতাবেক ১৯৪০ ঈ. সালে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম ইয়াকুব ও মাতার নাম কুলসুম রাহ.।

শৈশব কাল :- বাল্যকাল থেকেই তিনি অত্যন্ত নম্র ও শান্ত ছিলেন। শৈশবেও এলাকার মানুষ তাকে কোনোরূপ মন্দ কাজে লিপ্ত হতে দেখেনি।

শিক্ষা জীবন :- প্রাথমিক ও উচ্চ শিক্ষা…

তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা শুরু হয় স্থানীয় মকতব থেকে। এরপর মাতলাউল উলূম মালিগ্রাম মাদরাসায় মক্তব আউয়ালে ভর্তি হয়ে সাফেলা দুওম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখা করেন। এরপর উস্তাদগণের পরামর্শে তিনি দারুল উলূম দারুল হাদীস কানাইঘাট মাদরাসায় ভর্তি হন এবং সেখানে দীর্ঘ ১০ বছর লেখাপড়া করত আনুমানিক ১৩৮৫ হিজরী মোতাবেক ১৯৬৪ ঈ. সনে দাওরায়ে হাদীসের কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন।

কর্ম জীবন :- কর্মজীবন…
শাইখুল হাদীস আল্লামা আবদুল লতীফ রাহ. কর্মজীবনে কানাইঘাট থানার গাছবাড়ি মাযাহিরুল উলূম মাদরাসায় ছয় মাস শিক্ষকতার পর কানাইঘাট দারুল উলূম মাদরাসায় অধ্যাপনার কাজে নিয়োজিত হন এবং সততা ও নিষ্ঠার সাথে প্রায় ৪৫ বছর জীবনের শেষ সময়টুকু পর্যন্ত এই খেদমত আঞ্জাম দেন। এ দীর্ঘ মেয়াদে তিনি মাদরাসার প্রধান মুহাদ্দিস, নাযিমে তালীমাত, সাধারণ শিক্ষক প্রভৃতি দায়িত্ব পালন করেছেন।

কিছুকাল নকলারপার মুশাহিদিয়্যাহ তাজাম্মুলিয়াহ নকলার পার মাদরাসার মুহতামিম পদেও সমাসীন ছিলেন।

সাংগঠনিক কর্মতৎপরতা…
মরহুম মাওলানা আবদুল লতীফ রাহ. সাংগঠনিক দক্ষতার অধিকারী ছিলেন। তালিবে ইলমের যামানায় তিনি ‘জমঈআতুত তালাবাহ’ গঠন করেছিলেন। রাজনৈতিক অঙ্গনেও তাঁর পদচারনা ছিল। শাইখুল হাদীস আল্লামা মুহাম্মাদ মুশাহিদ বায়মপুরী রাহ.-এর সংশ্রবধন্য আযাদী আন্দোলনের অগ্রপথিক শেরে জৈন্তা মাওলানা নাজীব আলী শ্রীপুরী প্রমুখের জিহাদী প্রেরণা নিয়ে তিনি সারাটি জীবন কাটিয়েছিলেন।

আধ্যাত্মিকতা…
আবদুল লতীফ চাউরী রাহ. আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী রাহ.-এর সুযোগ্য খলীফা মাওলানা আবদুল করীম শাইখে ছত্রপুরী রাহ.-এর হাতে বাইআত ছিলেন এবং নিয়মিত মুজাহাদা করার পর স্বীয় মুর্শিদের কাছ থেকে ইজাযত লাভ করেছিলেন।

পারিবারিক জীবন….
কানাইঘাট পৌর এলাকাধীন উত্তর রায়গড় নিবাসী আলহাজ্ব হাশির সাহেবের কন্যাকে বিবাহ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন পুত্র, দুই কন্যা, নাতি-নাতনীসহ অনেক আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে যান।

সালাফে সালেহীনের প্রতিচ্ছবি….
তাঁর কথা ও কাজে পূর্বসূরীদের আভাস প্রতিফলিত হত। আমাদের জানা মতে, এই যুগে আমাদের অঞ্চলে যিনি পূর্ব যুগের বুযুর্গগণের সুন্নাতকে পুনর্জীবিত করা এবং এতে নতুনভাবে প্রাণ সঞ্চার করার ক্ষেত্রে বিরাট ভূমিকা রেখেছেন তিনি হলেন হযরত আল্লামা আবদুল লতীফ শাইখে চাউরী রাহ.।

তাঁর বিশিষ্ট উস্তাদ-ছাত্র…
তার উস্তাদ ছিলেন আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী ও তাঁর ছোট ভাই মাওলানা মুযযাম্মিল রাহ., মাওলানা শাহরুল্লাহ চটী রাহ., মাওলানা শফীকুল হক আকুনী রাহ., মাওলানা ফয়যুল বারী দা. বা. প্রমুখ। তাঁর ছাত্রদের মধ্যে অনেকে বিখ্যাত হয়েছেন। তাঁদের কয়েকজন হলেন মাওলানা আলীমুদ্দীন দুর্লপুরী, মাওলানা মাহমুদ হাসান রায়গড়ী, আল্লামা শফীকুল হক সুরইঘাটী, মাওলানা ফাইয আহমদ কানাইঘাটী রাহ., আল্লামা শামসুদ্দীন দুর্লপুরী, শাইখুল হাদীস আল্লামা আবদুল মান্নান দলইরগাও, মাওলানা ইমতিয়ায সাহেব চাউরি প্রমুখ।
কারামত….
আমাদের পূর্বসূরীরা বলে গেছেন-

الاستقامة خير من ألف كرامة، الاستقامة فوق الكرامة

অর্থাৎ কুরআন-সুন্নাহর উপর অবিচল থাকা হাজার কারামতের চেয়েও শ্রেষ্ঠ। এই নীতি অনুসারে তাঁর সবচেয়ে বড় কারামত ছিল দ্বীনের উপর অটলতা। এরপর তাঁর মৌলিক গুণ ছিল নামাযের পাবন্দি। নিয়মিত জামাতের সাথে তিনি নামায আদায় করতেন। তাঁকে একজন মুস্তাজাবুদ দাওয়াত বুযুর্গ মনে করা হত। অনাবৃষ্টির সময় হাত ওঠালেই রাববুল আলামীন তাঁর দুআ কবুল করতেন এবং রহমতের বৃষ্টি নাযিল করতেন।

মৃত্যু তারিখ :- বিশিষ্ট আলিমে দ্বীন, ইলমে ওহীর মুখলিস খাদিম বহুগুণে গুণান্বিত এই মানুষটি বিগত ২ রমযান ১৪৩২ হিজরী ১৯ শ্রাবণ ১৪১৮ বাংলা, মোতাবেক ৩ আগস্ট ২০১১ ঈ., রোজ বুধবার সকাল ৬টায় নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ৭২ বছর। আমরা দুআ করি-আল্লাহ তাআলা তাঁর দরজা বুলন্দ করুন। তাঁর জীবন থেকে আমাদের উপকৃত হওয়ার তাওফীক দান করুন। আল্লাহ তাআলা উভয় মুরববীকে জান্নাতুল ফেরদাউস নসীব করুন। আমীন। মাসিক আল কাউসার থেকে সংগৃহীত।

মোবাইল :- 01768642635

তথ্য দানকারীর নাম :- মুহা.গোলাম কিবরিয়া

তথ্য দানকারীর মোবাইল :- ০১৭৬৮৬৪২৬৩৫

Spread the love