সারাদেশের মাদ্রাসাসমূহ (বিভাগ ভিত্তিক)

মাওলানা শায়খ সৈয়দ আব্দুল খালিক রহঃএর জীবনী

মে ০১ ২০১৯, ০৩:৪৪

খলিফায়ে মাদানি মাওলানা শায়খ সৈয়দ আব্দুল খালিক রহঃ।

জন্ম ও শিক্ষা,, ১৫/৩/১৮৯৭ইংরেজিতে তৎকালীন সিলেট জেলার সুনামগঞ্জ মহকুমার জগন্নাথপুরের ঐতিহাসিক সৈয়দপুর গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত সৈয়দ খান্দানে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মাওলানা সৈয়দ ইমদাদ আলি রহ যিনি সৈয়দপুর ফাজিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতাদ্বয়ের একজন ছিলেন। মাওলানা সৈয়দ আব্দুল খালিক রাহ ছোট বেলা থেকেই অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, বিনয়ী ও সুতীক্ষ্ণ মেধার অধিকারী ছিলন। তার বয়স যখন পাচ বছর হয় তখন তিনি পিতার প্রতিষ্ঠিত ছবাহী মক্তবে লেখা পড়া শুরু করেন, তারপর সৈয়দপুর শামছিয়া আলিয়া মাদ্রাসায় কিছুদিন লেখা পড়া করেন অতঃপর উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য তখনকার সময়ের সুপ্রসিদ্ধ বিদ্যাপীঠ সিলেট ফুলবাড়িয়া আলিয়া মাদ্রাসায় ভর্তি হয়ে কৃতিত্বের সাথে আলিম পাশ করেন। কর্মজীবন,, সৈয়দ আব্দুল খালিক রাহ শিক্ষা জীবন সমাপ্ত করে নিজ গ্রাম সৈয়দপুরে বসবাস শুরু করে ইলমে ওহীর খিদমাতে নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। অতঃপর যখন শায়খুল ইসলাম আল্লামা সায়্যিদ হোসাইন আহমদ মাদানি রহ সিলেট আগমন করেন তখন তিনি স্বীয় মুর্শিদের সাথে গভীর সম্পর্ক কায়েম করে ইজাজত প্রাপ্ত হন। অতঃপর মাদানি রহ: কে তিনি সৈয়দপুরে নিজবাড়ীতে নিয়ে আসেন। সৈয়দ আব্দুল খালিক রহ: হযরত মাদানি রহ কে নিজ বাড়ীতে আনার পর তার পিতার প্রতিষ্ঠিত মক্তবে ইমদাদিয়াকে মাদ্রাসায় পরিণত করার জন্য মাদানি রাহ: পরামর্শ দেন। তারপর মাদানি রাহ:এর পরামর্শে সৈয়দ আব্দুল খালিক রহ: ও মাদানি রাহ: এর প্রথম খলিফা শায়খ সৈয়দ তখলিস হোসাইন রাহ: উভয়ে মিলে ১৯৪০ইংরেজিতে এই মক্তবে ইমদাদিয়াকে সৈয়দপুর হোসাইনিয়া হাফিজিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা নামকরণ করে ঈলমে দ্বীনের শিক্ষা দান শুরু করেন। উল্লেখ্য যে সৈয়দপুর দারুল হাদিস মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম ছিলেন শায়খ সৈয়দ আব্দুল খালিক রহ:। এভাবে দশ বছর শায়খ সৈয়দ আব্দুল খালিক রহ:এর বাড়ীতে সৈয়দপুর মাদ্রাসা চলার পর জায়গার সংকুলান না হওয়ায় গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তি বর্গ ও বুজুর্গানে দ্বীনের পরামর্শে সৈয়দপুর গ্রামের দক্ষিণ পার্শে নোয়াপাড়ার সামনে মাদ্রাসাকে স্থানান্তর করা হয়। যা আজ সুবিশাল সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর হোসাইনিয়া হাফিজিয়া আরাবিয়া দারুল হাদিস মাদ্রাসা নামে পরিচিত। রাজনৈতিক জীবন,, হযরত শায়খে সৈয়দপুরী রহ:তরুণ বয়সে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দে যোগাদান করে ব্রিটিশ বিরুধী আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পরেন। হযরত সুনামগঞ্জ মহকুমা জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জিম্মাদার ছিলেন। কারামাত,, সৈয়দপুর দারুল হাদিস মাদ্রাসার সাবেক মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল মান্নান শাল্লার হুজুর রাহ বর্ণনা করেন একদা বানিয়াচংগে অনাবৃষ্টির কারণে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পরে তখন মাদানী রহ: এর আরেক খলিফা হযরত গেদু মিয়া রহ:হযরত আব্দুল খালিক রহ:কে দাওয়াত দিয়ে সালাতুল ইসতেসকার নামাজ কায়েম করেন। হযরত শায়খে সৈয়দপুরী রহ: নামাজের পর কায়মনোবাক্যে দোয়া করেন। আলহামদুলিল্লাহ লোকজন বাড়ীতে পৈছাঁর আগে আগেই বৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। এছাড়া হযরতের আরও অনেক কারামাত রয়েছে। হযরত শায়খে সৈয়দপুরী রহ: দেওবন্দ থেকে শিক্ষা অর্জন করে ফিরার সময় মাদানি রাহ: উনাকে নিজের জোব্বা ও একটি খদ্দরের পাঞ্জাবি ও টুপি হাদিয়া দেন। ইন্তেকাল,, শায়খ আব্দুল খালিক রহ :১৯৫৮ইংরেজির ৭ই রজব শুক্রবারে রাতে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে এক ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে যান। তার ছেলের নাম হাফিজ শায়খ সৈয়দ আবু সাইদ রহ: যিনি সৈয়দপুর দারুল হাদিস মাদ্রাসার দীর্ঘ দিনের মুহতামিম ছিলেন । তার বড় জামাতার নাম আল্লামা নুর উদ্দিন গহরপুরী রহ:ও দ্বিতীয় জামাতার নাম মাওলানা লুতফুর রহমান রহ:। আল্লাহ যেন হযরত কে জান্নাতের উঁচু মাকাম দান করেন। লেখক হাফিজ মাওলানা সৈয়দ সুহাইল আহমদ উস্তাদ সৈয়দপুর দারুল হাদিস মাদ্রাসা।

Spread the love