মাওলানা আব্দুল জলিল ভাদেশ্বরী

ফেব্রুয়ারি ১১ ২০২১, ০৪:১৯

নাম: আব্দুল জলিল 
শায়েখ মাওলানা আব্দুল জলিল। যিনি এলাকায় শায়খে ভাদেশ্বরী বা শেখ সাব হিসেবে পরিচিত। গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের রাজাপুর মাঝরগাও গ্রামে ১৯৪০ ইং সনে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম আসাহিদ আলী ও মাতার নাম রফিজা বেগম। তিনিসহ ৫ ভাই, ৪ বোন। ভাইদের মধ্যে তৃতীয়। এবং বিবাহিত জীবনে ৫ ছেলে ও ৪ মেয়ের জনক।
তিনি আল্লামা শায়েখ লুৎফুর রহমান বর্ণভী রহ. ও আল্লামা আব্দুল মতিন শায়খে ফুলবাড়ি রহ. এর খেলাফতপ্রাপ্ত।
প্রাথমিক শিক্ষা পারিবারিক ও স্থানীয় পাঠশালায়। পরে দ্বীনি শিক্ষার আগ্রহ নিয়ে ভর্তি হন মিরগঞ্জ মাদরাসায়। সেখান থেকে জামিয়া ক্বাসিমুল উলুম মেওয়া মাদরাসায় ভর্তি হন। অতপর জামিয়া মাদানীয়া আঙ্গুরা মোহাম্মদপুর মাদরাসায় আলিয়া ছুওম পর্যন্ত পড়ে জামিয়া ইসলামিয়া তাঁতিবাজার ঢাকা থেকে  দাওরায়ে হাদীস শেষ করেন।
লেখাপড়া শেষ করেই ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কঠালপুরস্থ আমিরগঞ্জ মাদরাসা প্রতিষ্টা করে দ্বীনি খেদমত শুরু করেন। পরে সেখান থেকে চলে এসে ফেঞ্চুগঞ্জ মুজাহিরুল উলুম খিলপাড়া মাদরাসা নামে একটি কওমি মাদরাসা প্রতিষ্টা করেন। এরপর চলে যান প্রবাসে। প্রবাসে থেকেও মুহিউসসুন্নাহ সুনাপুর মাদরাসা প্রতিষ্টা করেন। এছাড়া বিভিন্ন মসজিদে ইমামতি করেন। ৮/৯ বছরের প্রবাস জীবনে তিনি জিদ্দা গুলিল মসজিদে আব্দুল্লাহ ইবনে মসউদ এ সানী ইমামের দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে দ্বীনি প্রচারে নিয়োজিত আছেন। আমল আখলাকের ক্ষেত্রে তিনি আমাদের জন্য অনুস্মরণীয়। একজন খালিস আল্লাহর ওলী। আধ্যাত্মিকতার জগতে সিলেটের বিভিন্নস্থানে তার অনেক মুরিদান রয়েছেন।
তার উস্তাদদের মধ্যে অন্যতম হলেন শায়খুল হাদীস আবু বকর রহ. ঢাকা, মাওলানা মজফফর হোসাইন রহ., মাওলানা শিহাব উদ্দিন রহ. আঙ্গুরা, মাওলানা খলিলুর রহমান পাতনী, মাওলানা আব্দুল খালিক দেউলগ্রাম।
ছাত্রদের মধ্যে অন্যতম হলেন মাওলানা নজির আহমদ নাজিমে তা’লীমাত বারইগ্রাম মাদরাসা, মাওলানা আব্দুল মজিদ রহ. খিলপাড়ি, মাওলানা আব্দুর রহিম ইলাশপুরী প্রমুখ উল্লেখযোগ্য।
তথ্য প্রদানকারী – নোমান মাহফুজ
Spread the love

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.