সারাদেশের মাদ্রাসাসমূহ (বিভাগ ভিত্তিক)

কওমী মাদরাসা সংশ্লিষ্ট কয়েকটি বিশেষ্য- মর্ম ও তাৎপর্য,

নভেম্বর ১৭ ২০২০, ০৪:০৫

মাওলানা শাহ মমশাদ আহমদ

কাওমী মাদরাসা (قوم) ক্বাওম অর্থ জাতী, ক্বাওমী মাদরাসা মানে মুসলমানদের জাতীয় শিক্ষা প্রতিষ্টান, যে প্রতিষ্ঠান মুসলিম জাতী দ্বারা পরিচালিত,মুসলিম জাতীয় তাহযিব তামাদ্দুন রক্ষায় বদ্ধপরিকর, সরকার ও তাগুতের হস্তক্ষেপ মুক্ত, সেটাই কওমী মাদরাসা।

মুহতামিম (مهتمم) মাদরাসার প্রধান কে মুহতামিম বলা হয়,শব্দের মুলে همরয়েছে, এর অর্থ চিন্তা ফিকির করা,প্রকৃত মুহতামিম মানেই যিনি সার্বক্ষণিক মাদরাসার ফিকির করেন।আমানত রক্ষায় ইহতেমাম করেন।
যার অধিক هم দ্ধারা همت পয়দা হয়,মাদরাসার উন্নতি ঘটে,এটাই মুহতামিমের কাজ,শব্দেই দায়িত্বের বর্ননা।

,,,( ناظم التعليمات) নাজিমে তালিমাত।।
মাদরাসার শিক্ষা পরিচালককে বলা হয়,নাজিম শব্দের মুলে রয়েছে نظم মানে মনি মুক্তা গাঁথা,মুতির মালা গাঁথুনির মত মাদরাসার শিক্ষা ব্যবস্থা যিনি একমনে গাঁথতে পারেন,তিনি প্রকৃত নাজেম।

শিক্ষা সচিব কে امين التعليم ও বলা হয়।
আমিন মানে আমানতদার, শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনায় যিনি নিজ দায়িত্ব আদায়,শিক্ষকদের মধ্যে জবাবদিহিতা,এবং ছাত্রদের শাসনের এর ক্ষেত্রে আমানতদারী ও ইনসাফ বজায় রাখতে পারেন,তিনিই আমিনে তা’লিম।

মাদরাসার শিক্ষককে معلم বলা হয়,যিনি ঈলিম শিক্ষা দেন,যার মুলে রয়েছে ঈলিম।
মুফতী শাফী (রহঃ) ঈলিমের সংজ্ঞায় বলেন,যা জানার পর আমল করার জন্য মনে জ্বলন পয়দা হয়,তার নামই ইলিম,যার ইলিম ও আমলে মিল থাকে, ছাত্রদের শিক্ষার সাথে সাথে দীক্ষা ও দিতে পারেন, তিনিই প্রকৃত মুয়াল্লিম বা শিক্ষক।

তালাবা,طلبه মাদরাসার ছাত্রদের তালাবা বলা হয়,যা তালেব এর বহুবচন، তালেব অর্থ তালাশকারী,অন্বেষণকারী,তালেব ইসমে ফায়েল,সার্বক্ষণিক যে ঈলিম ও আমলের অন্বেষনে থাকে সেই প্রকৃত তালেব।

মাদরাসার পরীক্ষাকে ইমতিহানامتحان বলা হয়,ইমতিহান অর্থ যেমনি পরীক্ষা তার অর্থ মনোনয়ন করাও,বাহ্যিক পরীক্ষা দেয়ার মাধ্যমে মুলতঃ আল্লাহর তাক্বওয়ার ক্ষেত্রে মনোনীত হওয়ার চেষ্টা করাই ইমতিহানের উদ্দেশ্য, শব্দটি এদিকেই ইঙ্গিতবহ।
امتحن الله قلوبهم للتقوي

মাদরাসা ছাত্রদের সামষ্টিক পাঠকেتكرار তাকরার বলে,মুল অর্থ বারংবার পড়া,বার বার পড়লে মনে বদ্ধমুল হয়।
اذا تكرر تقرر

মুকাদ্দামা, مقدمه,প্রতি কিতাবের শুরুতে যে ভুমিকা পড়ানো হয়,তাকে মুকাদ্দিমা বলে,যা নির্গত হয়েছ مقدمة الجيش থেকে, জিহাদের মাঠে মুজাহিদদের অগ্রবর্তী  বাহিনীকে مقدمة الجبشবলে,দারস তাদরিসে মনোযোগী হয়ে জিহাদ কে না ভুলার প্রতি ইঙ্গিত বহ।

লাব্বাইক, لبيك কওমী ছাত্ররা উস্তাদদের ডাকে “হাজির জনাব” প্রেজেন্ট স্যার”না বলে লাব্বাইক বলে,শাব্দিক অর্থ আমি আপনার সকাশে উপস্থিত, হজ্ব উমরার সময় হাজীরা ও আল্লাহর দরবারে উপস্তিতির জানান দেন লাব্বাঈক বলে, আল্লাহর ডাকে নিজকে আত্মবিসর্জিত করার প্রতিশ্রুতির ইঙ্গিতবাহী বাক্য।

দেওবন্দ,কওমী মাদরাসার মুলকেন্দ্র দারুল উলুম দেওবন্দ, যা ভারতের উত্তর প্রদেশে অবস্থিত,দেওবন্দ দুটি শব্দে যুক্ত,দেও মানে শয়তান,দেবতা,বন্দ মানে আবদ্ধ করা,বৃটিশ শয়তানদের আবদ্ধ করতে পেরেছে বিধায় দেওবন্দ নামই যথার্থ।যদিও পুর্ব থেকেই স্থানটির নাম দেওবন্দ।
তালিম তাবলীগ ও জিহাদের মূলনীতির আলোকে,এখলাসের সাথে যারা দ্বীনের কাজে জীবন আত্মনিবেদিত করেন,এরাই প্রকৃত দেওবন্দী।

আল্লাহ আমাদের প্রকৃত দেওবন্দী হিসেবে ইসলামের কাজ করার তাওফিক দিন।

মুহাদ্দিস, জামেয়া মাদানিয়া কাজির বাজার সিলেট।

Spread the love